প্রধানমন্ত্রীরও রেহাই নেই! গাড়িতে সিটবেল্ট না পরে জরিমানার মুখে ঋষি

তিনি ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী(Prime Minister)। তাতে নিয়মের গেরোয় রেহাই নেই ব্রিটেনের প্রশাসনিক প্রধানের। সিটবেল্ট ছাড়া গাড়ি চড়ায় জরিমানার মুখে পড়লেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনক(Rishi Sunak)। জানা গিয়েছে, মোটা অঙ্কের টাকা জরিমানা করা হয়েছে তাঁকে।

সম্প্রতি ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনকের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যাচ্ছে, লন্ডন (London) থেকে ল্যাঙ্কশায়ার যাচ্ছিলেন প্রধানমন্ত্রী ঋষি সুনাক। সঙ্গে থাকা প্রশাসনিক কর্তার সঙ্গে নিজের সরকারের নীতি নিয়ে আলোচনা করছিলেন তিনি। ব্লেজার-টাই পরিহিত অবস্থায় এই গাড়ি সফরে সিটবেল্ট পরেননি প্রধানমন্ত্রী। ইংল্যান্ডের আইনে যা অপরাধ হিসেবে গন্য করা হয়। এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ জরিমানা ৫০০ পাউন্ড পর্যন্ত। সুনকের এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর রীতিমতো সমালোচনা শুরু হয় সব মহলে। নড়েচড়ে বসে পুলিশও। বিপাকে পড়ে ক্ষমা চেয়ে নেন প্রধানমন্ত্রী নিজেও। তবে তাতে রেহাই মেলেনি।

ল্যাঙ্কশায়ার পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। সেখান থেকে ৪২ বছরের ব্যক্তিকে সিটবেল্ট না পরেই চলন্ত গাড়িতে দেখা গিয়েছে। নিয়ম ভাঙার জেরে তাঁকে জরিমানা করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, ট্রাফিক নিয়ম ভাঙার জেরে ১০০ পাউন্ড জরিমানা ভরতে হচ্ছে শাসক ঋষি সুনককে। ভারতীয় মুদ্রায় যা আনুমানিক ১০ হাজার টাকা। এদিকে এই ঘটনা প্রসঙ্গে ডাউনিং স্ট্রিটের মুখপাত্র জানান, “প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশ ঘুরে বেড়ান। তাঁকে তো কম সময়ের মধ্যে সেসব জায়গায় পৌঁছতে হয়। নানা ধরনের পরিবহণে যাতায়াত করতে হয়।” মুখপাত্র এও জানান, প্রধানমন্ত্রী স্বীকার করেছেন যে তাঁর ভুল হয়েছে এবং ক্ষমাও চেয়েছেন। তাঁর আরও দাবি, “চলন্ত গাড়িতে কিছুক্ষণের জন্যই তিনি সিটবেল্ট খুলেছিলেন। আপনারা যে ভিডিও দেখছেন, তা ওইটুকু সময়েরই।” এবার সেই ঘটনার শাস্তিও পেলেন সুনাক।

Previous articleমন খুশি হল নাকি নস্টালজিয়ায় ভারাক্রান্ত! জেনে নিন ‘দিলখুশ’-এর রিভিউ রিপোর্ট