সংক্রমণ বাড়ছে রাজ্যে, সরকারি হাসপাতালে কোভিড বেড বাড়াচ্ছে রাজ্য

প্রতীকী ছবি

করোনা পরিস্থিতি ক্রমশ বাড়ছে রাজ্য়ে। ভয়াবহ আকার নিচ্ছে রাজ্যের করোনা সংক্রমণ। টেস্টিংয়ের সংখ্যা বাড়তেই নতুন করে রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণ। উদ্বেগ কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিচ্ছে মৃত্যুর সংখ্যাও। তার উপর দেখা দিয়েছে ভ্যাকসিনের আকাল। পাশাপাশি হাসপাতালগুলিতেও বেডের সংকট দেখা দিতে শুরু করেছে। তাই এবার সরকারি হাসপাতালগুলিতে বেড সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য সরকার।

এতদিন সরকারি হাসপাতালগুলিতে করোনার জন্য বেডের সংখ্যা ছিল ৫ হাজার ৬০৪টি। এবার তা ১ হাজার ৮২৪টি বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর ফলে মোট বেড সংখ্যা দাঁড়াবে ৭ হাজার ৪২৮টি। এদিকে স্বাস্থ্য দফতরের বুলেটিন জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪হাজার ৮১৭ জন।

স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর,  এম আর বাঙ্গুরে বেড বাড়ছে ২৭২। কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে বাড়ছে ৩৬০টি বেড।  বেলেঘাটা আইডি-তে বাড়ছে ১৫০টি বেড।  চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার হাসপাতালে বাড়ছে ২৭৫টি বেড।

আরও পড়ুন- রাজ্যে লাগাতার বাড়ছে করোনা সংক্রমণ!‌ গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৪,৮১৭

রাজ্যে ক্রবর্ধমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে জেলাশাসকদের সঙ্গে ইতিমধ্য়েই ভার্চুয়াল বৈঠক সেরেছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকের পরেই করোনা রুখতে একাধিক নির্দেশিকা জারি করেছে নবান্ন। হাসপাতালগুলিকে গত বছরের থেকে ২০ শতাংশ বেশি ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পরিকাঠামো তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে নবান্নের তরফে।

এছাড়াও রাজ্যের যে ১০ টি জেলায় নির্বাচন হয়ে গিয়েছে, সেই জেলাগুলিতে করোনা রুখতে একাধিক ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। একই সঙ্গে পয়লা বৈশাখের অনুষ্ঠানে ভিড় কমানোর দিকেও নজর দিতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি কলকাতা পুরসভাকে ২৪ ঘণ্টা সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে নবান্নের তরফে।

আরও পড়ুন- নির্বাচন কমিশনের এক্তিয়ার নিয়ে নতুন ভাবনার সময় এসেছে

Advt